মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

প্রখ্যাতব্যক্তিত্ব

01)  কবি জীবনানন্দ দাস।

কবি জীবনানন্দ দাস ছিলেন ঝালকাঠি জেলার সদর উপজেলাধীন ৮নং গাবখান ধানসিড়ি ইউনিয়নের একজন কবি

জীবননান্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা


 
বাঙালিদের মধ্যে কবিতার কথা উঠলেই প্রথমে যে কবিতাটির নামটি মনে পড়ে তা হল "বনলতা সেন"। জীবননান্দ দাশের বনলতা সেন।
 
বর্তমান সময়ে অবশ্য কিশোররা জীবননান্দের সাথে পরিচিত হয় "আবার আসিব ফিরে" কবিতার মাধ্যমে, রুপসি বাংলা কাব্যগ্রন্থের অন্তর্ভূক্ত কবিতাটি। আমার ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছিল। অষ্টম শ্রেণীর পাঠ্য তালিকাভূক্ত আছে কবিতাটি। বাঙলার রুপ রঙ নিয়ে এমন কবিতা খুব কম লেখা হয়েছে এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। আর এই কবিতার সুবাদে জীবনান্দকে বলা হয় রুপসি বাংলার কবি।
 
জীবননান্দ শুধুমাত্র রুপসি বাংলার কবিই নন। প্রেমের কবিও। বনলতা সেন আর নীরাঞ্জনা তার অসাধারণ সৃষ্টি। অধিকাংশ বাঙালি যুবক সাধারণত কোন নারীর প্রেমের পড়ার পর এ কবিতা দুটিই আওড়ায়। বিশেষ করে বনলতা সেন।

 
জীবননান্দ প্রথম দিকে ছন্দ মিল রেখেই কবিতা লিখতেন। "জীবননান্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা" বইটির প্রথম দিকে সে কবিতাগুলোই স্থান পেয়েছে। তবে বাংলা সাহিত্যে আধুনিক কবিতা রচনা এবং তার মাধ্যমে বাংলা কাব্য জগতে নতুন বিনির্মাণের কারণেই বাংলা সাহিত্যে চির স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। পঞ্চপাণ্ডবের এক পাণ্ডব জীবননান্দ দাশ।
 

বইটি ভাল লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন এতে আপনার প্রিয়জনও বইটি পড়ার সুযোগ পাবে। আর ই গ্রন্থাগারের কর্মকাণ্ড ভাল লাগলে ফেসবুকে আমাদের গ্রুপে যোগ দিতে পারেন। গ্রুপে যে কোন মতামত ব্যক্ত করতে পারেন। স্বাদরে আপনার গঠনমূলক মতামত গৃহীত হবে। ই গ্রন্থাগার গ্রুপ

ছবি



Share with :

Facebook Twitter